আপনার পছন্দের ওয়েবসাইটের অ্যাড্রেস দিয়ে নিমিষেই একটি অ্যাপ তৈরি করবেন যেভাবে

 আপনার পছন্দের ওয়েবসাইটের অ্যাড্রেস দিয়ে নিমিষেই একটি অ্যাপ তৈরি করবেন যেভাবে



আমরা সকলেই কমবেশি ইন্টারনেটের কোন একটি ওয়েবসাইটের উপর বেশি পরিমাণে আসক্ত। এখানে আসক্ত বলতে, কোন একটি ওয়েবসাইট আমরা বেশি ভালোবাসি। সেই ওয়েবসাইটে গিয়ে আমরা বিভিন্ন আর্টিকেল পড়তে কিংবা সেই ওয়েবসাইট থেকে বিভিন্ন খবরা-খবর নিতে আমরা পছন্দ করি। কিন্তু প্রতিদিন এভাবে করে সেই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার জন্য আমাদেরকে ব্রাউজারে ইউআরএল লিখতে হয় অথবা সেই ওয়েবসাইটের নাম লিখে সার্চ করতে হয়। প্রতিদিন এভাবে করে সেই ওয়েবসাইট এর নাম লেখার মধ্যে আমাদের একটি বিরক্তিকর ভাব চলে আসে।




প্রতিদিন এভাবে করে ওয়েবসাইটের নাম লিখে সেই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার বিকল্প হিসেবে আমরা অ্যাপ ডাউনলোড করে সেই ওয়েবসাইটে ভিজিট করে থাকি। কিন্তু আপনি যে ওয়েবসাইটে বেশি পরিমাণে প্রবেশ করেন সে ওয়েবসাইটের যদি কোনো অ্যাপ্লিকেশন না থাকে, তবে ব্যাপারটি কেমন হয়? এক্ষেত্রে আপনার আর কোন কিছু করার থাকবে না। তবে সেই ওয়েবসাইটের অ্যাপ্লিকেশন প্লে স্টোরে কিংবা অ্যাপল স্টোরে না থাকলেও আপনি সেই ওয়েবসাইটের একটি অ্যাপ তৈরি করে নিতে পারবেন। আর এটি আপনি করতে পারবেন মাত্র কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে।

ব্যাপারটি শুনে আপনার কাছে এটি কি অবাস্তব মনে হচ্ছে? এটা কিন্তু মোটেও অবাস্তব কিছু নয়। বরং, আপনি এতদিন এই বিষয়টি দেখে এসেছেন; কিন্তু এটির প্রয়োগ করেনি। তাই আজকের এই টিউনে আমি আপনাদেরকে দেখাতে চলেছি, কিভাবে কোন একটি ওয়েবসাইটের অ্যাপ তৈরি করবেন সেটিও মাত্র কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে। চলুন তবে কথা না বাড়িয়ে এবার দেখে নেয়া যাক কিভাবে এটি আপনি করবেন।

কোন ওয়েবসাইট কে অ্যাপ বানিয়ে নিয়ে যেভাবে ব্যবহার করবেন




আপনি যদি কোনো একটি ওয়েবসাইটকে অ্যাপের মতো করে ব্যবহার করতে চান এজন্য আপনাকে গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করতে হবে। আগে যদি গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করেন, তবে এ ব্রাউজার থেকে যে কোন একটি ওয়েবসাইটকে অ্যাপের মতো বানাতে পারবেন। চলুন তবে এবার সেটি দেখে নেওয়া যাক।

১. এজন্য উদাহরণস্বরূপ আমি একটি ওয়েবসাইটকে বেছে নিচ্ছি। এক্ষেত্রে আমি প্রথম আলো ওয়েবসাইটটিকে বেছে নিলাম। এবার প্রথম আলো ওয়েবসাইটটি কে আমি একটি অ্যাপের মত বানাব।




২. এজন্য প্রথম আলো ওয়েবসাইট থেকে আমাকে ক্রোম ব্রাউজারের উপরের থ্রি ডট আইকনটিতে ক্লিক করতে হবে; যেমনটি আপনি নিচের চিত্রে দেখতে পাচ্ছেন।




৩. এবার এখান থেকে আপনি নিচে পেয়ে যাবেন Install app নামের একটি অপশন এবং এখানে ক্লিক করলে পরবর্তীতে Install নামের একটি বাটন পেয়ে যাবেন; এবার আপনি এখানে ক্লিক করবেন। এর পরবর্তীতে আপনার মোবাইলে এই ওয়েব অ্যাপটি ইনস্টল হয়ে যাবে।





এখানে উপরে দেখা পদ্ধতিটির মাধ্যমে আপনি কোন একটি ওয়েবসাইটকে এভাবে করে অ্যাপ এর মত তৈরী করতে পারবেন। কিন্তু কোন ওয়েবসাইটে আপনি এইরকম লেখার পরিবর্তে অন্য রকম ভাবে ও দেখতে পারবেন। এর জন্য আমি নিচে আরো একটি উদাহরণ দিচ্ছি।

দ্বিতীয় পদ্ধতিঃ এই ওয়েবসাইটটি কে কিভাবে অ্যাপ্লিকেশনে পরিণত করা যায়।

১. এজন্য আমি প্রথমে চলে আসলাম টেকটিউনস এর ওয়েবসাইটে। এবার এখান থেকে যথারীতি আমি উপরের থ্রি ডট আইকনটিতে ক্লিক করবো। এর পরবর্তীতে আপনি এখানে নিচে দেখতে পাচ্ছেন Add to Home screen নামের একটি অপশন; এবার আপনি এখানে ক্লিক করবেন।





২. এর পরবর্তী পৃষ্ঠায় আপনাকে নিচের প্রথম চিত্রের মতো দেখাবে এবং আপনি এখান থেকে Add অপশনটিতে ক্লিক করবেন। এছাড়া আপনি যদি এই ওয়েবসাইটের নাম পরিবর্তন করে অন্য কোন নাম রেখে দিতে চান, তবে লেখাগুলোর ওপর ক্লিক করে আপনি সেগুলো পরিবর্তন করতে পারেন। এর পরবর্তীতে আপনি নিচের দ্বিতীয় চিত্রের মত Add Automatically অপশনটিতে ক্লিক করবেন।




এবার এই ওয়েবসাইটটি আপনার মোবাইলের হোম স্ক্রিনে একটি অ্যাপ এর মত করে তৈরি হয়ে গিয়েছে। এছাড়া এভাবে করে আপনি ইন্টারনেটে যে কোন ওয়েবসাইটকে অ্যাপ হিসেবে তৈরি করতে পারেন। তবে চলুন এবার দেখে নেয়া যাক যে এগুলো কীভাবে আমাদের মোবাইলের হোমস্ক্রিনে রয়েছে।

এখানে আপনি নিচের চিত্রে দেখতে পাচ্ছেন যে, স্বাভাবিকভাবে যে সমস্ত অ্যাপ গুলো আমরা আমাদের মোবাইলে ইন্সটল করে থাকি, সেসব অ্যাপ গুলোর মতই এ দুইটি ওয়েবসাইট ও তৈরি হয়েছে।

এগুলো দেখে বোঝার উপায় নেই যে, এগুলো কোন একটি ওয়েবসাইট। কোন ওয়েবসাইটে ভাবে করে হোমস্ক্রিনে নিয়ে আসার পর যদি সেগুলোর নাম অনেক বেশি বড় মনে হয় তবে আপনি সেটি পূর্বেই Edit করে ছোট করে দিতে পারতেন।



বন্ধুরা, আপনি যদি এখন এই অ্যাপ এর মত আইকনটিতে ক্লিক করেন, তবে আপনাকে এসব ওয়েবসাইটে নিয়ে যাবে। এক্ষেত্রে আপনাকে বারবার কোন একটি ব্রাউজার এ গিয়ে সেই ওয়েবসাইটের ইউআরএল অথবা সেই ওয়েবসাইটের নাম লিখে সার্চ করতে হবে না।

এবার থেকে আপনি কোন একটি ওয়েবসাইটকে কিভাবে করে অ্যাপ তৈরি করার মাধ্যমে সেগুলোতে খুব সহজেই ভিজিট করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনাকে আলাদা করে গুগল প্লে স্টোর থেকে অথবা অ্যাপল স্টোর থেকে কোন অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে না।
Post a Comment (0)
Previous Post Next Post